Buscar
09:21h. Jueves, 20 de Septiembre de 2018

পেট্রোল বিক্রি বন্ধে কঠোর নির্দেশ

২০ দলীয় জোটের ডাকা টানা কর্মসূচিতে চলমান নাশকতায় পেট্রোলবোমার ব্যবহার আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় অবৈধ পেট্রোল বিক্রি বন্ধে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক।

পেট্রোল-বোমা
পেট্রোল-বোমা

২০ দলীয় জোটের ডাকা টানা কর্মসূচিতে চলমান নাশকতায় পেট্রোলবোমার ব্যবহার আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় অবৈধ পেট্রোল বিক্রি বন্ধে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক।

সোমবার চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের সম্মেলন কক্ষে ফিলিং স্টেশন মালিক ও খুচরা বিক্রেতাদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন এ নির্দেশ দেন।

বৈঠকে ফিলিং স্টেশনে সার্বক্ষণিক সিসি ক্যামেরা চালু, মাত্রাতিরিক্ত পেট্রোল ও অকটেন বিক্রি না করা, নিয়মিত রেজিস্ট্রেশন বইতে ক্রেতাদের নাম-পরিচয় লিখে রাখার নির্দেশ দেন। নির্দেশ বাস্তবায়নের বিষয়টি তদারকি করতে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সব জায়গায় নিরাপত্তা দিতে পারবে না। নানা সীমাবদ্ধতার কারণে সেটি সম্ভব না হওয়ায় আমাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। যারা আজকে পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করছে তাদের একদিন মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত করে বিচার হবে।’

তিনি বলেন, ‘নাশকতাকারীদের ধতে প্রত্যেক উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় সিসি ক্যামেরা বসানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পেট্রোল ও অকটেন জাতীয় দাহ্য পদার্থ বিক্রির সময় নিয়মিত রেজিস্টার খাতা ব্যবহার করার জন্য ফিলিং স্টেশন ও খুচরা পেট্রোল বিক্রিতাদের প্রতি অনুরোধ করছি। এছাড়া যাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হবে তাদের নিকটস্থ পুলিশের কাছে সোপর্দ করবেন।’

বৈঠকে আরো বক্তব্য দেন- চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার একেএম হাফিজ আক্তার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবুল হোসেন, চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক মাহফুজুল হক, বাংলাদেশ পেট্রোল ডিজেলস অ্যাসোসিয়েশনের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি এহসানুর রহমান প্রমুখ।