Buscar
04:37h. lunes, 28 de septiembre de 2020

টেস্ট থেকে অবসর মহেন্দ্র সিংহ ধোনি

ভারতের মাটিতে ২০০৮-এ নাগপুর টেস্টে অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়েছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। আর ২০১৪-য় অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে মেলবোর্ন টেস্টে অবসর নিলেন তিনি। কাকতালীয় না হলেও টেস্টে অধিনায়ক হিসাবে দায়িত্ব নেওয়া এবং তা থেকে অবসর নেওয়া—

ভারতের মাটিতে ২০০৮-এ নাগপুর টেস্টে অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়েছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। আর ২০১৪-য় অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে মেলবোর্ন টেস্টে অবসর নিলেন তিনি। কাকতালীয় না হলেও টেস্টে অধিনায়ক হিসাবে দায়িত্ব নেওয়া এবং তা থেকে অবসর নেওয়া— দু’টি ক্ষেত্রেই এক অদ্ভুত মিল রয়েছে। কারণ এই দু’টি ক্ষেত্রেই তাঁর ‘প্রতিপক্ষ’ ছিল অস্ট্রেলিয়া। অজিদের বিরুদ্ধেই তাঁর টেস্ট সফর শুরু করে তাঁদের বিরুদ্ধে খেলেই সেই সফরে ইতি টানলেন ভারতের সফলতম অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। যদিও তাঁর শেষ টেস্ট সফর খুব একটা সুখকর হয়নি। কারণ ইতিমধ্যেই অজিরা একটা টেস্ট বাকি থাকতেই সিরিজ নিজেদের দখলে নিয়েছে। ডাউন আন্ডার সফরের আগে থেকেই চোট সমস্যার জন্য তাঁর খেলা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। প্রথম টেস্টে না খেললেও পরের দু’টি টেস্টে অধিনায়কত্ব করেন তিনি। কিন্তু টেস্ট সিরিজ চলাকালীন তিনি এ ভাবে অবসর নেবেন তা ভাবতেই পারেনি ক্রিকেট বিশ্ব। সবাইকে অবাক করে দিয়ে মঙ্গলবার মেলবোর্ন টেস্ট শেষে নিজের অবসরের কথা বোর্ডকে জানিয়ে দেন ধোনি। তার পরই বিসিসিআই এক বিবৃতিতে টেস্ট ক্রিকেট থেকে ধোনির অবসরের কথা জানিয়ে দেয়। ধোনির এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, টেস্ট থেকে অবসর নিলেও ওয়ান ডে ও টি-টোয়েন্টিতে খেলবেন ধোনি।

ভারত অধিনায়কের এই অবসরের পরই তাঁর উত্তরসূরি কে হবেন তা নিয়েই ক্রিকেট মহলে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। যদিও বোর্ড সূত্রে খবর, আগামী সিডনি টেস্টে অধিনায়কের দায়িত্ব সামলাবেন বিরাট কোহলি।

ভারতের সফলতম অধিনায়ক ধোনির নেতৃত্বে মোট ৬০টি টেস্ট খেলেছে ভারত। তার মধ্যে ২৭টি টেস্টে জয় এসেছে তাঁর হাত ধরেই। শুধু তাই নয়, ‘ক্যাপ্টেন কুল’-এর নেতৃত্বেই ২০০৭-এ টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১১-র বিশ্বকাপ জিতেছে ভারত। তাঁর জমানাতেই আইসিসি টেস্ট র্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ স্থানে পৌঁছয় ভারত।