Buscar
06:03h. Lunes, 16 de diciembre de 2019

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে দরবার করলেন মোর্চা নেতৃত্ব

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে দরবার করলেন মোর্চা নেতৃত্ব৷‌ সোমবার৷‌ দাবি তুললেন গোর্খাল্যান্ডের৷‌ মোর্চার ওই দাবির ব্যাপারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে অবগত, তা নিজে জানিয়েও দিয়েছেন বলে জানালেন বিমল গুরুং৷‌

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে দরবার করলেন মোর্চা নেতৃত্ব৷‌ সোমবার৷‌ দাবি তুললেন গোর্খাল্যান্ডের৷‌ মোর্চার ওই দাবির ব্যাপারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে অবগত, তা নিজে জানিয়েও দিয়েছেন বলে জানালেন বিমল গুরুং৷‌ মোর্চার এই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকার এগজামিন কমিটি গঠন করবে বলেও আশ্বস্ত করা হয়েছে বলে এদিন খোদ বিমল গুরুং সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে লিখে দিয়েছেন৷‌ পাশাপাশি রাজনাথ সিংয়ের তরফে অনুরোধ করা হয়, ১৮, ১৯ ও ২০ ডিসেম্বর যম্তর মম্তরে মোর্চার ধর্না বিক্ষোভ তুলে নিতে৷‌ মোর্চার কেন্দ্রীয় নেতারা তা মেনেও নিয়েছেন৷‌ উল্লেখ্য, ২০০৯ ও ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে মোর্চা বি জে পি-কে সমর্থন করেছিল, কারণ বি জে পি পাহাড়ের দীর্ঘদিনের দাবি ‘গোর্খাল্যান্ড’-এর বিষয়টি সহানুভূতির সঙ্গে দেখবেন বলে জানিয়েছিলেন৷‌ মোর্চার সমর্থনের কারণে বি জে পি প্রার্থী উভয় লোকসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ীও হন৷‌ এবার বি জে পি কেন্দ্রে সরকার গড়ায় মোর্চাও ব্যাপক আশায় বসে৷‌ তাদের ধারণা, ঝাড়খণ্ড, উত্তরাখণ্ড ও তেলেঙ্গানার মতো গোর্খাল্যান্ড করার ব্যাপারেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেবে৷‌ এদিন রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে গোর্খাল্যান্ডের দাবি নিয়ে দেখা করলে রাজনাথ সিং এই ইস্যুর ব্যাপারে এগজামিন কমিটি গঠনের আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে৷‌ এদিকে, গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে পাহাড়ে আর আন্দোলন না করে আন্দোলনকে দিল্লিমুখী করার কথা ঘোষণা করেছিলেন বিমল গুরুং৷‌ তারই অংশ হিসেবে ১৮, ১৯ ও ২০ ডিসেম্বর দিল্লিতে ধর্না বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়েছিল৷‌ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অনুরোধে সেই ধর্না তুলে নিয়ে গুরুং ২৭ নভেম্বর দার্জিলিঙে কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক ডেকেছেন৷‌ সেখানে সমস্ত শাখা, উপশাখা এবং গণসংগঠনগুলিকেও ডাকা হচ্ছে৷‌ সেখানে দিল্লির আলোচনা নিয়ে পর্যালোচনার পাশাপাশি পাহাড়ের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক অবস্হা নিয়েও আলোচনা হবে৷‌ অন্যদিকে, ৭ ডিসেম্বর দার্জিলিঙের চকবাজারে মোর্চার তরফে জনসভার ডাক দেওয়া হয়েছে৷‌ এদিকে, পাহাড়ের পর্যটনকে তুলে ধরতে মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে অরে? কার র্যালি৷‌ এদিন তার জন্য চৌরাস্তায় সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল৷‌